ঢাকা, সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৯

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে রম্য বিতর্ক

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:৫৪, ২০ নভেম্বর ২০২২  

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে রম্য বিতর্ক

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে রম্য বিতর্ক

আসন্ন ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২ উপলক্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘রম্য বিতর্ক’। 

গতকাল শনিবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষা শহিদ রফিক ভবনের নিচতলায়  এই রম্য বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠিত বিতর্কের বিষয় ছিল ‘আমার দলই সেরা দল, বিশ্বকাপ নিবো জোরসে বল’। বিতর্কে জার্মানি, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা এবং পর্তুগাল এই চারটি দলের হয়ে মোট আটজন বিতার্কিক অংশ নেয়।

প্রতিযোগিতায় জার্মানির সমর্থক হয়ে বিতর্ক করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আম্মান সিদ্দিকী এবং নাইমা আক্তার রিতা। আর্জেন্টিনার হয়ে বিতর্ক করেন রাফিয়া রহমান এবং মোর্শেদ হাসান আসিফ। ব্রাজিল হয়ে বিতর্ক করেন আহম্মেদ আমিন সিফাত এবং ফারিস্তা প্রিয়া। এছাড়াও পর্তুগালের সমর্থক দল হয়ে বিতর্ক করেছেন জোহরা খাতুন ডলি এবং কিশোর সাম্য।

অংশগ্রহণকারী প্রত্যকেই তার নিজ দলের ইতিহাস-ঐতিহ্য, বিভিন্ন ধরণের কৃতিত্ব এবং শৈল্পিক খেলাকে তুলে ধরেন। বিভিন্ন ইতিবাচক দিক এবং অন্য দলের সম্পর্কে হাস্যরসাত্মক সমালোচনা করেন। মাঝেমধ্যে ছুড়ে দিয়েছেন প্রশ্নও।

জার্মানির পক্ষে বিতর্ক করা আম্মান সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, যদিও রম্য বিতর্ক হয়েছে, তবে প্রত্যেকটা বিতর্কিকই সর্বোচ্চ আগ্রহের জায়গা থেকে বিতর্ক করেছে। নিজ নিজ দলকে সেরা প্রমাণ করতে ফুটবলের ইতিহাস, তাদের দলের বর্তমান অবস্থান এবং নিজ দলকে সমর্থন করার বহুবিধ কারণ দেখান। এই ধরনের বিতর্কের মধ্য দিয়ে ফুটবল  সমর্থকদের অনুরাগের জায়গা অনেকটা বৃদ্ধি পাবে আশা করছি। 

এই বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধক এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির সোসাইটির মডারেটর মো. মেফতাহুল হাসান বলেন, বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রতি বাঙ্গালির যে আবেগ রয়েছে আমার মনে হয় তা বিশ্বকাপে যারা খেলে তাদের চেয়ে কোনো অংশে কম নয়। বিশ্বকাপের দরবারে এখনো বাংলাদেশ প্রতিনিধিত্ব করতে পারছে না। কিন্তু তারপরেও এই বিশ্বকাপের মাধ্যমে চার বছর পরপর নিজেদের আবেগ তুলে ধরতে পারি। এটা আর কোনো জাতি পারে কি না আমার সন্দেহ। এই আবেগকে ফলপ্রসূ করেছে এই বিতর্ক প্রতিযোগিতা। 

বিতর্ক শেষে জগন্নাথ ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি মো. সাইদুল ইসলাম সাঈদ বলেন, বিতর্কের মাধ্যমে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে গঠনমূলক আলোচনা ও সমালোচনার সাপেক্ষে সুষ্ঠু সমাধান ও সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়ার প্রত্যয়ে আমাদের এ আয়োজন। সর্বোপরি এই বিতর্কে সবারই জয় হয়েছে। আমাদের এই ফুটবল বিশ্বকাপকে  আনন্দ হিসেবে উপভোগ করতে হবে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়