ঢাকা, বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||  আষাঢ় ১৬ ১৪২৯

বিশ্বমানের চিকিৎসাসেবা দিতে শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালের যাত্রা

হেলথ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:২২, ১৯ জুন ২০২২  

শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালের উদ্বোধন অনুষ্ঠান

শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালের উদ্বোধন অনুষ্ঠান

জাপানি প্রযুক্তি ও বিশেষায়িত চিকিৎসকদের নিয়ে দেশে বিশ্বমানের চিকিৎসাসেবা দেওয়ার অঙ্গীকার নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতাল। গতকাল শনিবার (১৮ জুন) রাজধানীর তুরাগে হাসপাতালটি ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন।

এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন- জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) কার্যনির্বাহী সদস্য মোহসিনা ইয়াসমিন, জাইকার প্রধান প্রতিনিধি হায়াকাওয়া য়ুহো, পরিচালক নাকাযাওয়াকেইচিরও, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালটির চেয়ারম্যান হিরোইউকিকোবায়াশি, ডেপুটি চেয়ারম্যান ও সিএফও হিদেওকোজিমা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন।

এ সময় জানানো হয়, জাপানের গ্রিন হসপিটাল সাপ্লাই, জাইকা ও বাংলাদেশের আইচি মেডিকেল গ্রুপের যৌথ উদ্যোগে ২০১৬ সালে বাংলাদেশে শিপ আইচি মেডিকেল সার্ভিস লিমিটেডের যাত্রা শুরু হয়। এর আওতায়-ই শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালটি দেশে ৬৫০ শয্যার আন্তর্জাতিক মানের হাসপাতাল হতে যাচ্ছে।

বেসরকারি এই হাসপাতালে হৃদযন্ত্রের নিবিড় পর্যবেক্ষণকেন্দ্র (সিসিইউ), বার্ন ইউনিট, নবজাতক নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্র (এনআইসিইউ) ও ডায়ালাইসিস সুবিধা রয়েছে। এছাড়া নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) ৪৪টি শয্যা চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে। অত্যাধুনিক জীবনরক্ষাকারী সরঞ্জাম ও সার্বক্ষণিক থাকবেন প্রশিক্ষিত চিকিৎসাকর্মীরা।

এই হাসপাতালে রয়েছে ২০ হাজার বর্গ মিটারের আলাদা ইনপেশেন্ট ভবন, আলাদা কার্যালয়, সার্ভিস সাপোর্ট ভবন ও ৫১টি আউটপেশেন্ট (ওপিডি) কক্ষ। জাপানি স্টাইলের ব্যাক আইল সিস্টেমসহ তিনটি অত্যাধুনিক মডিউলার অপারেশন থিয়েটার। রয়েছে ক্লাস ট্রমা ও কার্ডিয়াক সেন্টার ও ৪০০টি গাড়ি ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন আন্ডারগ্রাউন্ড পার্কিং সিস্টেম।

হাসপাতালটির চেয়ারম্যান হিরোইউকিকোবায়াশি বলেন, হাসপাতালটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে দেশের চিকিৎসাসেবায় নতুন অধ্যায়ের সূচনা হবে। এ হাসপাতাল থেকে জাপানের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এবং উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে শুধু আশুলিয়া বা ঢাকার নয়, সারা বাংলাদেশের রোগীরা উন্নত স্বাস্থ্যসেবা পাবেন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়