ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

রাজ ও মেহজাবীন খেলবেন একসঙ্গে, বাকিরা কে কোন দলে

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪:৫১, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

রাজ ও মেহজাবীন খেলবেন একসঙ্গে, বাকিরা কে কোন দলে

রাজ ও মেহজাবীন খেলবেন একসঙ্গে, বাকিরা কে কোন দলে

উপমহাদেশে আর কিছুদিন পরেই আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ শুরু হতে যাচ্ছে। তারই জোয়ারে ভাসছে ক্রিকেট প্রেমীরা। আর বাংলাদেশ বলতে ক্রিকেট পাগল একটি জাতি। বুড়ো থেকে গুঁড়ো সকলের হাতে ব্যাট বলের চলছে ম্যাজিক ছোঁয়া। পিছিয়ে নেই ঢালিউডের শোবিজ তারকারাও। 

আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে দেশের শোবিজ তারকাদের নিয়ে জমজমাট ক্রিকেট লিগের আসর ‘সেলিব্রেটি ক্রিকেট লিগ (সিসিএল)’। আট দলের অংশগ্রহণে এই টুর্নামেন্ট চলবে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। 

আয়োজনটি করছে জি নেক্সট জেনারেশন নামের একটি প্রতিষ্ঠান। আয়োজনে মোট আটটি দলে ভাগ হয়ে খেলবেন শোবিজের কলাকুশলীরা। প্রতি দলে ১০ থেকে ১৫ জন খেলোয়াড় থাকবেন বলে জানিয়েছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ।

আটটি দলের নেতৃত্ব দেবেন আটজন নির্মাতা। তারা হলেন গিয়াসউদ্দিন সেলিম, সালাহউদ্দিন লাভলু, শিহাব শাহীন, চয়নিকা চৌধুরী, দীপংকর দীপন, সকাল আহমেদ, মোস্তফা কামাল রাজ ও রায়হান রাফী। প্রতি দলে পুরুষ তারকাদের পাশাপাশি নারী তারকারাও অংশ নেবেন।

জানা গেছে, গিয়াসউদ্দিন সেলিমের দলে খেলবেন শ্যামল মাওলা ও মৌসুমী হামিদ। সালাহউদ্দিন লাভলুর দলে খেলবেন চঞ্চল চৌধুরী, শাহনাজ খুশী, বাপ্পী চৌধুরী, নিলয় আলমগীর, দিব্য জ্যোতি, সৌম্য জ্যোতি, নির্মাতা তুহিন হোসেনসহ অনেকে।

নির্মাতা শিহাব শাহীনের দলে আরিফিন শুভ, মিথিলা, সাফা কবির; চয়নিকা চৌধুরীর দলে পরীমণি ও তমা মির্জা; দীপংকর দীপনের দলে এ বি এম সুমন, সুনেরাহ বিনতে কামাল ও জিয়াউর রোশান; মোস্তফা কামাল রাজের দলে শরিফুল রাজ ও মেহজাবীন; রায়হান রাফীর দলে আফরান নিশো ও সিয়াম আহমেদের মতো তারকারা।

এ ছাড়া চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক, স্পর্শিয়া, তানজিন তিশা ও জাহারা মিতুর মতো অভিনয়শিল্পীরাও খেলতে পারেন বলে জানা গেছে।

তারকাদের এই ক্রিকেট লিগ নিয়ে উচ্ছ্বসিত নির্মাতা সালাহউদ্দিন লাভলু । তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপে খেলতে যাবে। এটি আমাদের জন্য আনন্দের। আশা করছি, বাংলাদেশ ওয়ার্ল্ড কাপ জিতবে। ক্রিকেট টিমকে উজ্জীবিত করতে আমাদের এই প্রয়াস। ক্রিকেটারদের মানসিক সাপোর্ট দেওয়া খুবই জরুরি। সেই বোধের জায়গা থেকেই আমরা একত্র হয়েছি। এখানে জয়-পরাজয় কোনো ব্যাপার নয়। অংশগ্রহণই বড় ব্যাপার। আশা করছি, শিল্পীদের তরফ থেকে সুন্দর একটি ক্রিকেট খেলা উপহার দিতে পারব দর্শকদের।দীপংকর দীপন বলেন, ‘সিসিএল দারুণ একটি আয়োজন। ক্রিকেট নিয়ে আমাদের যে উন্মাদনা, সেই উন্মাদনার অংশ হিসেবে আমরা এতে অংশ নিচ্ছি। এ ছাড়া আগামীতে বাংলাদেশের জাতীয় দল ওয়ার্ল্ড কাপে খেলতে যাবে– তাদের উৎসাহ দিতেই আমাদের এ আয়োজন। আশা করি পুরো আয়োজনটি আনন্দের হবে।’

চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘এমন একটি আয়োজনে নিজের দল নিয়ে মাঠে নামতে পারা সত্যিই অনেক ভালো লাগা কাজ করবে। আটটি দলে হবে এই ক্রিকেট ম্যাচ। প্রতিটি দলেই খেলবেন পছন্দের তারকারা। আশা করি পুরো তিন দিনের এই ম্যাচ সবার কাছেই উৎসবের হবে।’বিজয়ী দলের জন্য লাখ টাকারও বেশি পুরস্কার রয়েছে বলে জানা গেছে। একই সঙ্গে রয়েছে ট্রফি।

এমন আয়োজন নিয়ে নির্মাতা গিয়াস উদ্দিন সেলিম বলেন, আসলে ক্রিকেট খেলার চেয়ে বড় হচ্ছে উৎসাহ। আমরা সবাই একসঙ্গে কয়েকটি দিন ব্যাট-বলের খেলা উদযাপন করব। হারজিত এখানে মুখ্য নয়। ক্রিকেট নিয়ে আমাদের উন্মাদনাই এখানে আসল।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়