ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৮ ১৪২৯

শরীরে আয়রনের অভাব দূর করবে এই ৫টি খাবার

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৯, ১২ জানুয়ারি ২০২৩  

শরীরে আয়রনের অভাব দূর করবে এই ৫টি খাবার

শরীরে আয়রনের অভাব দূর করবে এই ৫টি খাবার

আমাদের শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ আয়রন প্রয়োজন হয়। এই উপাদান লোহিত রক্ত কণিকা তৈরি করতে, হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়াতে, পেশী টিস্যুতে অক্সিজেন সঞ্চয় করতে, শিশুদের সুস্থ মস্তিষ্কের বৃদ্ধি এবং সম্পূর্ণ বিকাশের জন্য আয়রন খুব বড় ভূমিকা পালন করে থাকে।

আয়রন আমাদের শরীরকে ভিতর থেকে সুস্থ রাখে এবং শক্তিশালী রাখে। সব বয়সের মানুষের জন্য যথেষ্ট পরিমানে আয়রনযুক্ত খাবার খাওয়া খুবই জরুরি। আয়রন একধরণের গুরুত্বপূর্ণ খনিজ যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। 

শরীরে লোহিত রক্ত কণিকা তৈরি করতে , হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়াতে, পেশী টিস্যুতে অক্সিজেন সঞ্চয় করতে , শিশুদের সুস্থ মস্তিষ্কের বৃদ্ধি এবং সম্পূর্ণ বিকাশের জন্য আয়রন খুব বড় ভূমিকা পালন করে থাকে।

শরীরে আয়রনের ঘাটতি থাকলে শরীর খুব দুর্বল লাগে , মাথা ব্যাথা করে ,রক্তচাপ কমে যায় , মাথা ঘোরে , বুকে ব্যথা করে শ্বাস নিতে সমস্যা হয় , হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যায় এবং বিশেষ করে হিমোগ্লোবিন ভীষণভাবে কমে যায় ফলে লোকেরা রক্তাল্পতায় ভোগে। হিমোগ্লোবিন শরীরের এমন একটি প্রধান উপাদান যা ফুসফুস থেকে শরীরের অন্যান্য অংশে অক্সিজেন বহন করে। ঋতুস্রাব বা গর্ভবতী নারীদের ক্ষেত্রে আয়রনের অভাব বিভিন্ন ধরণের সমস্যা নিয়ে আসতে পারে। কিডনির সমস্যায় আক্রান্ত রোগীরা যাদের ডায়ালাইসিস চলছে তাদের ক্ষেত্রেও আয়রনের অভাব ক্ষতি ডেকে আনে। তাই দেরি না করে নিজের শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য শীঘ্র আপনার ডায়েট চার্টে অবশ্যই এই ৫টি খাবার অন্তর্ভুক্ত করুন।

আসুন কিছু আয়রন সমৃদ্ধ খাবার  জেনে নেয়া যাক -

পালং শাক :পালং শাকে প্রচুর পরিমানে আয়রন আছে। কম ক্যালোরিযুক্ত এই পুষ্টিকর সবজিতে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমানে ভিটামিন সি যা আমাদের শরীরকে আয়রন শোষণ করতে সাহায্য করে। এর মধ্যে মজুত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট চোখকে ভালো রাখে , চুলের বৃদ্ধিকে উন্নত করে এবং ইনফ্লামেশন কম করে। আপনার খাদ্য তালিকায় পালংশাকের ব্যবহার অনস্বীকার্য। বিভিন্ন ধরণের খাবার যেমন পাস্তা, স্যালাড এবং অন্যান্য রান্নাতে পালং শাকের ব্যবহার শরীরকে সুস্থ রাখতে এবং আপনার রান্নার স্বাদ বাড়াতে সাহায্য করে।

লেগিউমস: লেগিউমস যেমন মটরশুটি ,মসুর ডাল, ছোলা ,সয়াবিন এই ধরণের সবজি এবং ডালে প্রচুর পরিমানে আয়রন, ফোলেট, ম্যাগনেসিয়াম এবং পটাসিয়াম থাকে। বিশেষ করে মটরশুঁটিতে থাকে প্রচুর পরিমানে আয়রন যা শরীরে আয়রনের ঘাটতি পূরণ করে। শরীরে আয়রন অবসর্প্শনের জন্য ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার যেমন টমেটো বা সাইট্রাস ফল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া শিমে ফাইবারের পরিমান বেশি থাকায় তা ওজন কমাতে সাহায্য করে।

মাছ: আপনি যদি আমিষাশী হয়ে থাকেন , তাহলে শরীরে আয়রনের পরিমান বাড়াতে অবশ্যই মাছ কাদ্যতালিকায় যোগ করুন। টুনা, ম্যাকেরেল এবং সার্ডিন জাতীয় মাছে রয়েছে প্রচুর পরিমানে আয়রন যা আপনার চোখের , চুলের , এবং শরীরে আয়রনের সমস্যা দূর করে। মাছে থকা ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং শরীরের বৃদ্ধি ও বিকাশে সাহায্য করে।

কুমড়ো বীজ: স্বাদে এবং গুনে উভয়ক্ষেত্রেই কুমড়োর বীজ খুবই উপকারি। ভাজা কিংবা কাঁচা যেকোন ভাবে এগুলো খাওয়া যেতে পারে। ভিটামিন কে, জিঙ্ক এবং ম্যাঙ্গানিজ সমৃদ্ধ এই কুমড়ার বীজ আপনার রান্নায় কিংবা স্যুপে ব্যবহার করুন যা আপনার শরীরে আয়রনের পরিমান বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।

ব্রকলি: ব্রকলি সব বয়সের মানুষের জন্য খুবই উপকারি একটি খাবার যাতে আছে প্রচুর পরিমানে আয়রন , ভিটামিন সি ,ফোলেট, ফাইবার এবং ভিটামিন কে। শিশুদের ব্রকোলির স্যুপ বানিয়ে খাওয়াতে পারেন। তাছাড়া যেকোন মিক্সড সবজি, নুডুলস , পাস্তা কিংবা অন্যান্য খাবারেও ব্রকোলি যোগ করতে পারেন যা স্বাদে এবং গুনে শরীরের জন্য অতুলনীয়।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়