ঢাকা, সোমবার   ২০ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪৩১

হেফাজতের তাণ্ডবকে বৈধতা দিতে চেয়েছিলো আদিলুর ও এলান

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:০৮, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

হেফাজতের তাণ্ডবকে বৈধতা দিতে চেয়েছিলো আদিলুর ও এলান

হেফাজতের তাণ্ডবকে বৈধতা দিতে চেয়েছিলো আদিলুর ও এলান

২০১৩ সালে মতিঝিলে হেফাজত ইসলামের সমাবেশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযান নিয়ে তথ্য বিকৃতির দায়ে মানবাধিকার সংগঠন অধিকারের সম্পাদক আদিলুর রহমান খান শুভ্র ও সংগঠনটির পরিচালক এ এস এম নাসির উদ্দিন এলানের দুই বছরের কারাদণ্ড হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ এম জুলফিকার হায়াত এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় দুজনই আদালতে হাজির ছিলেন। পরে সাজার পরোয়ানাসহ তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়।

কারাদণ্ডের পাশাপাশি উভয়কে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার টাকা দিতে ব্যর্থ হলে তাঁদের আরও এক মাস কারাভোগ করতে হবে বলে রায়ে বলা হয়েছে।

২০১৩ সালে ৫ মে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে হেফাজত ইসলামের সমাবেশস্থল থেকে রাত্রিযাপনের ঘোষণা দেওয়া হলে তাদের সরিয়ে দিতে যৌথ অভিযান চালায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তখন হেফাজতে ইসলামীর ৬১ জন নেতা-কর্মী নিহত হয়েছিলেন বলে অধিকার দাবি করে এবং প্রচার করে। যা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ছিলো বলে আদালতে প্রমাণ হয়।

আদালতের এই রায়ে প্রমাণ হয়- আসামি আদিলুর ও এলান ৬১ জনের মৃত্যুর ‘বানোয়াট, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও মিথ্যা’ তথ্য দিয়ে প্রতিবেদন তৈরি ও প্রচার করে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি করে আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নের অপচেষ্টা চালায়। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সরকার ও রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি দেশে-বিদেশে চরমভাবে ক্ষুণ্ন করতেই সেই অপপ্রচার চালায় তারা।

পাশাপাশি ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সরকারের বিরুদ্ধে বিরূপ মনোভাবের সৃষ্টির উদ্দেশ্যে অপপ্রচার ছড়ায় কথিত মানবাধিকার সংগঠনের সম্পাদক আদিলুর রহমান শুভ্র ও গঠনটির পরিচালক এ এস এম নাসির উদ্দিন এলান।

মূলত, বিএনপি-জামায়াতে এজেন্ডা বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যেই এই অপপ্রচার চালায় তারা। বিএনপি-জামায়াত চেয়েছিলো আন্তর্জাতিকভাবে হেফাজতের এই তান্ডবকে বৈধতা দিয়ে সরকারকে চাপে ফেলতে। কিন্তু মহামান্য আদালতে প্রমাণ হয়- তারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই অপপ্রচার চালায়।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়