ঢাকা, শুক্রবার   ০৭ অক্টোবর ২০২২ ||  আশ্বিন ২২ ১৪২৯

‘হেলিকপ্টার উদযাপনে’ নাঈমের সেঞ্চুরি

স্পোর্টস ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১৪:৩৪, ১৯ আগস্ট ২০২২  

‘হেলিকপ্টার উদযাপনে’ নাঈমের সেঞ্চুরি

‘হেলিকপ্টার উদযাপনে’ নাঈমের সেঞ্চুরি

তিনটি একদিনের সিরিজে শুরুটা হার দিয়ে হলেও দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক উইন্ডিজের বিপক্ষে ৪৪ রানের জয় দিয়ে সমতায় ফিরেছে বাংলাদেশ। যে ম্যাচে শতক তুলে নেন বাংলাদেশ ‘এ’ দলের ওপেনার নাঈম শেখ।   

দুটি চার দিনের ম্যাচ আর তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলতে বর্তমানে উইন্ডিজ সফর করছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল।

বৃহস্পতিবার সেন্ট লুসিয়ার ড্যারেন সামি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে সেঞ্চুরি তুলে নেন বাংলাদেশ ‘এ’ দলের ওপেনার নাঈম শেখ। ফর্ম হারিয়ে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া এই তরুণ খেলেন ১০৩ রানের ইনিংস। 

ইনিংসের ৩২তম ওভারে নাঈম পান শতরানের দেখা। ব্রায়ান চার্লসের বল তার ব্যাটের কানায় লেগে কিপারের পাশ দিয়ে চলে যায় বাউন্ডারিতে। সেই শটই তাকে পৌঁছে দেয় সেঞ্চুরিতে। 

এরপরই দেখা মিলল তার চমকপ্রদ উদযাপন। সেঞ্চুরির পর সাধারণত যা হয়, হাতে হেলমেট ও আরেক হাতে ব্যাট উঁচিয়ে ধরেন ব্যাটসম্যানরা, সেটাই প্রথমে করেন নাঈম। এরপর শরীর এদিক-ওদিক বাঁকিয়ে, ব্যাটকে মাথার ওপর তলোয়ারের মতো ঘুরিয়ে তিনি দেখান নাচেও বুঝি কম যান না তিনি। 

উইন্ডিজ ক্রিকেটের ইউটিউব চ্যানেলের ধারাভাষ্যকার তাতে মুগ্ধ হয়ে বলেন, ‘কি দারুণ উদযাপন, হেলিকপ্টার উদযাপন!’

এরপর অবশ্য খুব বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি তিনি। ইনিংসের মাত্র ৩২তম ওভারেই অ্যান্ডারসন ফিলিপের বলে জাস্টিন গ্রিভসের হাতে ক্যাচ তোলেন তিনি। 

এ ম্যাচে রানের দেখা পেয়েছেন দীর্ঘ ৩ বছর পর জাতীয় দলে ফেরা সাব্বির রহমান। অর্ধশতক হাঁকিয়ে ৫৮ বলে ৬২ রান করেন এই ডানহাতি। এতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৭৭ রান তোলে টাইগাররা।

যদিও আরেক ওপেনার সৌম্য সরকার ৬ রানে বোল্ড হন বাজে শটে। তবে দ্বিতীয় উইকেটে সাইফ হাসানের সঙ্গে ৫৭ রানের জুটিতে ধাক্কা সামাল দেন নাঈম। পরে তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক মিঠুনের সঙ্গে যোগ করেন ৯৩ রান।

এই জুটি ভাঙার আগে শতক তুলে নেন নাঈম। ১১৭ বলে ১৪ চার ও ১ ছয়ে ১০৩ রান করে থামেন তিনি। শেষদিকে দলের রান বাড়ানোর দায়িত্ব নেন সাব্বির। সঙ্গী হিসাবে পান মাহমুদুল হাসান জয়ের জায়গায় সুযোগ পাওয়া শাহাদত হোসেন দিপুকে। ২৪ রান করেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য দিপু। ১২ বলে অপরাজিত ১৮ রান করেন জাকের আলি অনিক। বাংলাদেশ ‘এ’ দল থামে ৬ উইকেটে ২৭৭ রান করে।

২৭৮ রানের লক্ষ্য টপকাতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে স্বাগতিকদের দারুণ শুরু এনে দেন ত্যাগনারাইন চন্দরপল ও জশুয়া ডি সিলভা। ২০ ওভার ২ বল খেলে তারা যোগ করেন ৯৩ রান। ৩৮ রানে থাকা চন্দরপলকে ফিরিয়ে এই পার্টনারশিপ পেসার ভাঙেন রেজাউর রহমান রাজা। অধিনায়ক সিলভা অবশ্য ফিফটির দেখা পান। ৬৮ রানে থাকা সিলভাকে নিজের দ্বিতীয় শিকার বানান রাজা।

পরে সফরকারী বোলারদের ধারাবাহিক বোলিংয়ে সুবিধা করতে পারেনি উইন্ডিজ ‘এ’ দল। টেডি বিশপ ৩১, অ্যান্ডারসন ফিলিপস ১৫ রান করে আউট হলে বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে ব্যর্থ হয় তারা। 

শেষদিকে ব্রায়ার্ন চার্লসের অপরাজিত ২৯ রানের ইনিংস হারের ব্যবধান কমিয়েছে শুধু। শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৩৩ রানে থামে ক্যারিবীয়দের ইনিংস। 

এর ফলে ৪৪ রানের জয়ে সিরিজে সমতা ফেরায় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের হয়ে পেসার মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন। এছাড়া রাজা নেন ২ উইকেট। 

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ২০ আগস্ট, একই ভেন্যুতে। যা দু’দলের জন্যই অলিখিত ফাইনাল। এ ম্যাচে যে জিতবে সেই সিরিজ ঘরে তুলবে।  

সর্বশেষ
জনপ্রিয়