ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৮ ১৪২৯

ইউক্রেনের নাগরিকত্ব পেলেন বরিস জনসন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:০৬, ২৭ নভেম্বর ২০২২  

ইউক্রেনের নাগরিকত্ব পেলেন বরিস জনসন

ইউক্রেনের নাগরিকত্ব পেলেন বরিস জনসন

সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে সম্মানসূচক নাগরিকত্ব দিয়েছে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন।

গত বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

কিয়েভের মেয়র ভিটালি ক্লিটসকো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে এক পোস্টে লেখেন, ‘ইউক্রেনের একজন মহান বন্ধু বরিস জনসনকে কিয়েভের সম্মানসূচক নাগরিকত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত অনুমোদন করেছে কিয়েভ সিটি কাউন্সিল।’

যুক্তরাজ্যের ক্ষমতায় থাকাকালে বরিস জনসন বেশ কয়েকবার ইউক্রেনের রাজধানী পরিদর্শন করেছেন। বিশেষ করে যুদ্ধ চলাকালে তিনিই প্রথম কিয়েভ সফর করেন এবং জেলেনস্কির সাথে একাত্মতা পোষণ করে তাকে সব ধরনের সাহায্যের আশ্বাস দেন।

পরবর্তীতে তার অনুসরণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, শীর্ষ কর্মকর্তা এমনকি জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসও কিয়েভ সফর করেন। ফলে বরিস জনসনের সফরগুলো ইউক্রেনের কাছে বেশ গুরুত্বের দাবি রাখে।

সফর পরবর্তী সময়েও বরিস জনসন কিয়েভকে সব ধরনের সাহায্যের আশ্বাস দেন এবং যতদিন প্রয়োজন সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। তার সুরে সুর মিলিয়ে পরবর্তীতে আরো অনেক দেশ একইভাবে কিয়েভকে সহায়তার আশ্বাস দেন। এমনকি বরিস জনসন ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার পরও লিজ ট্রাস ও ঋষি সুনাক প্রধানমন্ত্রিত্বের দায়িত্ব নিয়ে কিয়েভের প্রতি একই ধরনের সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন।

সম্প্রতি সিএনএন-এর সাথে একটি সাক্ষাৎকারে ইউক্রেনের পক্ষ নিয়ে পশ্চিমা দেশগুলোর মনোভাবের কড়া সমালোচনা করেন বরিস জনসন। তার এসব কার্যক্রম রাশিয়ার বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান নিতে ইউক্রেনকে অনেকটাই সহযোগিতা করে।

বরিসের এসব কার্যক্রমের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ক্লিটসকো তার বিবৃতিতে আরও বলেন, আপনার সহযোগিতার জন্যে ধন্যবাদ! আমরা আপনাকে এই সম্মানজনক পুরস্কার প্রদানের জন্য কিয়েভে অপেক্ষা করছি।

বরিস জনসন অবশ্য যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার মেয়াদ পুরো করতে পারেননি। হঠাৎ করেই তার মন্ত্রীরা পদত্যাগ করতে শুরু করলে এক পর্যায়ে তিনিও ক্ষমতা থেকে নেমে যেতে বাধ্য হন। পরে তার উত্তরসূরি নির্বচিত হন লিজ ট্রাস। তিনিও ৪৪ দিনের মাথায় পদ থেকে নেমে যেতে বাধ্য হন।

এর পরে বর্তমানে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন ঋষি সুনাক। তিনি কয়েকদিন আগে কিয়েভ সফর করে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সাথে দেখা করেন এবং একটি নতুন প্রতিরক্ষা প্যাকেজ ঘোষণা করেন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়