ঢাকা, সোমবার   ২৩ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৯

বিশ্বে শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ হিসেবে এক নম্বর অবস্থানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী: সেনাপ্রধান

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:১৩, ৩ জানুয়ারি ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বর্তমান বিশ্বে শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ হিসেবে এক নম্বরে অবস্থান করছে। এক নম্বরে থাকাতে বুঝা যায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কী ধরনের পারফরম্যান্স করছে।

গত রোববার (২ জানুয়ারি) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর ইউনিয়নের দিঘীর পাড়ে অসহায় চারশতাধিক  দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

সেনাপ্রধান বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, যিনি আমাদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী, তিনি আমাদের সেনাবাহিনীর আধুনিকায়ন ও সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য যা যা করা দরকার তার সবকিছুই করছেন। প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছা সেনাবাহিনীর সক্ষমতা আরও বাড়াতে হবে। প্রশিক্ষণে আমাদের আরও মনোযোগী হতে হবে। সে ইচ্ছা অনুযায়ী সেনাবাহিনী যুগের সাথে তাল মিলিয়ে যা দরকার এবং সক্ষমতা প্রয়োজন তা আমরা বৃদ্ধি করছি। এটা আমরা করে যাব। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া।'

এর আগে স্থানীয় অসহায় মানুষদের জন্য কুমিল্লা সেনানিবাসের ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের অধীনে ৩৫ ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্স পরিচালিত বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্প কার্যক্রমের খোঁজ খবর নেন। এধরনের সেবামূলক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান সেনাপ্রধান।

এর আগে শাহবাজপুর গ্রামে সেনাবাহিনী পরিচালিত মেডিকেল ক্যাম্প থেকে স্থানীয় গ্রামবাসীকে বিনামূল্যে ওষুধ ও চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়। চিকিৎসা সেবা পেয়ে অনেকটা স্বস্তি প্রকাশ করেন গ্রামবাসী।

শাহবাজপুর গ্রামের বাসিন্দা আনার মিয়া বলেন, 'টাউনে গেলে আমাদের অনেক টাকা খরচ অইলোনে। আমরা সেনাবাহিনীর কাছ থেকে বিনামূল্যে চিকিৎসা পাইছি। ওষুধ পাইছি। খুব ভালো লাগছে।'

চিকিৎসা সেবা সম্পর্কে কুমিল্লা সেনানিবাস ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের অধীনে পরিচালিত ৩৫ ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্স টিমের চিকিৎসক লে. কর্নেল জেসমিন জানান, শীতকালীন সময়ে গ্রামের বয়স্ক মানুষ নানা রোগে ভুগছেন। তাদের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। জটিল রোগীদের জেলা ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসার জন্য পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে। আমাদের এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

এর আগে সেনাবাহিনী প্রধান দুপুর ২টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শাহবাজপুর এসে পৌঁছালে তাকে স্বাগত জানান কুমিল্লা ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি এবং এরিয়া কমান্ডার, কুমিল্লা এরিয়া মেজর জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর হারুন। এ সময় সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়