ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

কবর থেকে ৭ দিন পর জেগে উঠলেন জিমি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:০৫, ২২ নভেম্বর ২০২৩  

জিমি ডোনাল্ডসন

জিমি ডোনাল্ডসন

যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় ইউটিউবার জিমি ডোনাল্ডসন ওরফে ‘মিস্টার বিস্ট’। দর্শক টানতে এর আগেও চমকে দেওয়া বিভিন্ন রকম ভিডিও কনটেন্ট তৈরি করেছেন তিনি। তবে এবারের ভিডিওটি ছিল সবকিছুকে ছাপিয়ে যাওয়া। মার্কিন এই ইউটিউবার মাটির তলায় কফিনবন্দি হয়ে কাটিয়েছেন ৭ দিন। প্রশ্ন হলো, তার পরেও তিনি জীবিত থাকলেন কীভাবে?ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, সাত দিন কবরে থাকার জন্য যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়েছিলেন মিস্টার বিস্ট। যদিও তাঁর কফিনের ওপরে ২০ হাজার পাউন্ড মাটি ঢালা হয়েছিল। কিন্তু কফিনের ভেতরটি ছিল শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। 

এছাড়াও কফিনের ভেতর শুকনো খাবার ও পানীয় নিয়ে গিয়েছিলেন জিমি। যাতে করে তাঁকে কোনো বিপদে পড়তে না হয়। মিস্টার বিস্টের সঙ্গে ছিল একটি ওয়াকিটকিও। সেটির মাধ্যমে তাঁর সঙ্গে সাত দিন ধরে যোগাযোগ রাখছিল উদ্ধারকারীরা। এছাড়াও কফিনে লাগানো ছিল ক্যামেরা ও রেকর্ডার।

ভাইরাল ভিডিওটিতে দেখা গেছে, নির্বিঘ্নে কফিনে সাত দিন কাটিয়েছেন বিস্ট। কোনও রকম অসুবিধার মুখে পড়তে হয়নি তাঁকে।  

জিমির ইউটিউবে ভক্ত সংখ্যা ২১ কোটি ২০ লাখ। জীবন্ত সাত দিন মাটির নিচে থাকার কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মিস্টার বিস্টের জনপ্রিয়তা আরও বেড়েছে বলেই জানা গেছে। তবে এর জন্য মানসিক যন্ত্রণার মুখে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন বিস্ট। পাশাপাশি কেউ যাতে একাজ না করেন সেই বিষয়েও সতর্ক করেছেন। 

এর আগে ২০২১ সালে ৫০ ঘণ্টার জন্য কবরে ছিলেন জিমি। ফোর্বস ম্যাগাজিনের তথ্য অনুযায়ী, ২০২১ সালে মিস্টার বিস্ট ইউটিউব থেকে ৫ কোটি ৪০ লাখ ডলার আয় করেছিলেন।  

সর্বশেষ
জনপ্রিয়